সর্বশেষ সংবাদ

স্মার্ট হাসপাতাল আইডিয়ার সফল প্রয়োগ : পৃথিবীর ইতিহাসে প্রথম ৩২ কিলোমিটার দুরে থেকে হার্টের অপারেশন

এফ শাহজাহান < এশিয়ানবার্তা ডেস্ক> বাংলাদেশে আমরাই যখন প্রথম স্মার্ট হাসপাতালের আইডিয়ার একটা বাস্তব রুপ তুলে ধরার প্রচারনা শুরু করেছিলাম, তখন অনেকেই এটাকে হাস্যকর বলেছেন। আমাদের শেফা স্মার্ট হাসপাতালের নাম শুনে অনেকেই অবাক হয়ে বলেছেন এটা আবার কেমন হাসপাতাল ?

অথচ আমাদের প্রকল্পটাই ছিল প্রত্যন্ত পল্লীর কোন এক পাড়াগাঁয়ের বিছানায় কাতরানো রোগীকে চিকিৎসা দিয়ে সেরে তুলবেন রাজধানীতে বসে থাকা কোন এক সেরা চিকিৎসক। রোগী নিজের ঘরে শুয়ে বসে থেকেই দেশ বিদেশের বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে উঠবেন।

সেই হাস্যকর আইডিয়াটাই এখন পৃথিবীর ইতিহাসে স্থান করে নিল।

পৃথিবীর ইতিহাসে প্রথম ৩২ কিলোমিটার দুরে থেকে হার্টের অপারেশন করে স্মার্ট হাসপাতাল ধারনার সফল প্রয়োগ ঘটানো হলো। রোগীর নিকট থেকে ৩২ কিলোমিটার দুরে চিকিৎসক অবস্থান করে এই সফল অপারেশনের মাধ্যমে স্মার্টহাসপাতাল যুগের সফল সুচণা করা হল।

অনেকেই বলেছেন  স্মার্ট হাসপাতালের আইডিয়া স্রেফ কল্পনা ছাড়া আর কিছুই নয়। । অথচ আজ আর সেটা কল্পনা নয়,একেবারেই চরম বাস্তব। স্মার্ট হাসপাতাল এখন অসাধারন এক বাস্তবতার নাম।

স্মার্ট হাসপাতালের কথা শুনে সবাই প্রশ্ন করেন, এটা আবার কেমন হাসপাতাল ? যখন তাকে সবকিছু ভেঙ্গে বলা হয়,তখনো বিশ্বাস করতে চান না। শেষমেষ বলে বসেন, এটা শুধু কল্পনাতেই সম্ভব,বাস্তবে নয়।

সেই কল্পনাকেই এবার বাস্তবে করে দেখালেন, ভারতের গুজরাটের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তেজাস পাটেল । স্মার্ট হাসপাতাল আইডিয়ার সফল প্রয়োগ ঘটিয়ে তিনি চিকিৎসা বিজ্ঞানে এক যুগান্তকারী ঘটনার জন্ম দিলেন। স্মার্ট হাসপাতালের পথিকৃত হয়ে রইলেন।

পৃথিবীর ইতিহাসে প্রথম ৩২ কিলোমিটার দুরে থেকে হার্টের অপারেশন চিকিৎসা বিজ্ঞানে নতুন নজির স্থাপন করলেন গুজরাটের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ তেজাস পাটেল। রোগী থেকে ৩২ কিলোমিটার দূরে বসে কম্পিউটারের মাধ্যমে রোবট চালিয়ে সফল হার্ট অপারেশন করেছেন তিনি।

এটা যে শুধু ৩২ কিলোমিটার দুরে থেকে করা সম্ভব তা কিন্তু নয়। ৩হাজার কিলোমিটার দুরে থেকেও করা সম্ভব। আমেরিকার নিউইয়র্কে বসে একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক বাংলাদেশের বগুড়া জেলার যে কোন অজ পাড়াগাঁয়ের রোগীর অপারেশনও সফল ভাবে করতে পারবেন। সেই যুগটাই এখন আমাদের হাতের নাগালে।

বিশ্বের চিকিৎসা শাস্ত্রের ইতিহাসে এ ঘটনা অভূতপূর্ব। বুধবার আহমদাবাদের অ্যাপেক্স হার্ট ইন্সটিটিউটে ছিলেন রোগী। মধ্যবয়স্কা এই মহিলার ধমনীতে ৯০ শতাংশ ব্লক থাকার কারণে রক্ত চলাচল প্রায় বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

এ জন্য অপারেশনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন চিকিৎসকরা। আর চিকিৎসক তেজাস পাটেল সেই অপারেশন করলেন হাসপাতাল থেকে ৩২ কিলোমিটার দূরে গাঁধীনগরের অক্ষরধাম মন্দির থেকে।

কম্পিউটারের সাহায্যে রোবট চালিয়েই এ অপারেশন করলেন তিনি। একই সঙ্গে এগিয়ে নিয়ে গেলেন সারা পৃথিবীর মেডিকেল সায়েন্সকে। কারণ এ ঘটনা পৃথিবীর ইতিহাসে প্রথম।

মেডিকেলের পরিভাষায় এ ঘটনাকে বলা হচ্ছে টেলি রোবটিক সার্জারি। অত্যাধুনিক রোবটিকসের মাধ্যমেই এই অসাধ্য সাধন করা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। অপারেশন থিয়েটারের বাইরে থেকে রোগীর সফল অস্ত্রোপচার এটাই প্রথম।

এ সফলতায় তেজাস পাটেলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপানি। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রত্যন্ত গ্রামে অত্যাধুনিক চিকিৎসার সুযোগ পৌঁছে দেয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

বাংলাদেশের এক ছোট শহর প্রাচীন বাংলার রাজধানী পূন্ড্রনগর খ্যাত বগুড়ার শেফা স্মার্ট হাসপাতালের পক্ষ থেকে আমরাও অভিনন্দন জানাচ্ছি তেজেস প্যাটেলকে। জয় হোক স্মার্ট হাসপাতাল আইডিয়ার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow