সর্বশেষ সংবাদ

গুইমারাতে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা কাপ ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট২০১৯ শুরু


খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:
খাগড়াছড়ি জেলার গুইমারা উপজেলার বড়পিলাক বাজার সংলগ্ন মাঠে,বর্ণঢ্য আনুষ্টানিকতায়“শান্তির সংকল্পে ঐক্যবদ্ধ” ১৪ফিল্ড রেজিমেন্ট আর্টিলারি সিন্দুকছড়ি জোনের আয়োজনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে আতœত্যাগকারী শহীদ,বীরঙ্গনা,মুক্তিযোদ্ধাসহ সকলের প্রতি অকৃত্রিম ভালবাসা ও শদ্ধার্ঘ স্বরূপ বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা কাপ ক্রিকেট টর্নামেন্ট-২০১৯শুরু হয়েছে হয়েছে।
রবিবার(১০ফেব্রুয়ারী)বিকালে সিন্দুকছড়ি জোন কমান্ডার লে: কর্ণেল রুবায়েত মাহমুদ হাসিব প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বেলুন উড়িয়ে টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন করেন।
এসময়,গুইমারা বর্ডার গার্ড হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক লে: কর্ণেল মোহাম্মদ হোসাইন বিন-সাঈদ,সিন্দুকছড়ি জোন উপ অধিনায়ক মেজর তৌহিদ,গুইমারা উপজেলা চেয়ারম্যান উশ্যেপ্রু মারমা,মানিকছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান ¤্রাগ্য মারমা,গুইমারা থানার অফিসার্স ইনচার্জ বিদ্যুৎ কুমার বড়–য়া,গুইমারা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ্য মো: নজিম উদ্দিন,গুইমারা উপজেলা আ:লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান মেমং মারমা,হাফছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান চাইথোয়াই চেšধুরী,সিন্দুকছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান রেদাক মারমা,গুইমারা-মানিকছড়ি মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার,হাফছড়ি ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ডাং শাহ আলম,বড়পিলাক বাজার বাস্থবায়ন কমিটির যুগ্ন আহবায়ক ও উপজেলা আ:লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আইয়ুব আলী মেম্বার,স্থানীয় সাংবাদিক,জনপ্রতিনিধি,টুর্নামেন্টে অংশগ্রহনকারী টিম লিড়ার,খেলোয়ার,জোনের এবংবিজিবি হাসপাতাল গুইমারার পদস্থ সামরিক কর্মকর্তারা,ক্রিকেট প্রেমিক শত শত দর্শক উপস্থিত ছিলেন।
এসময় প্রধান অতিথি বলেন,খেলাধুলা মানুষের মাঝে সম্প্রীতি ও আস্থা বৃদ্ধি করে।মনের অশান্তি ও কলুষতা দূর করে মনকে বড় করে।নিয়মিত খেলাধুলা চর্চার মধ্য দিয়ে সুস্থ্য মানসিকতার বিকাশ ঘটাতে হবে।বর্তমানে যুব সমাজে যে নৈতিক অবক্ষয় ঘটছে তা থেকে উত্তরণের জন্য খেলাধুলার বিকল্প নাই।নিয়মিত খেলাধুলা যুব সমাজকে নৈতিক অবক্ষয়ের হাত থেকে রক্ষা করবে।তিনি বলেন,সন্ত্রাস নৈরাজ্য কখনও জাতি বা দেশের কল্যাণ ও উন্নয়ন করতে পারে না, আর ক্রীড়ামোধিরা কখনো সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য করতে পারে না।
টূর্নামেন্টে মোট ১৭টি দল অংশ নেয়।উদ্বোধনী ম্যাচে বড়পিলাক একাদশকে পরাজিত করে গুইমারা আইনশৃংখলা বাহিনী একাদশ বিজয়ী হয়।মানিকছড়ি রানী নিহার দেবী স্কুল মাঠ,বড়পিলাক বাজার সংলগ্ন মাট এবং গুইমারা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ,এই তিনটি ভেনুতে চারটি গ্রুপে টূর্নামেন্ট অনুষ্টিত হবে।তিনটি নকআউট পদ্ধতিতে এবং ঘ গ্রুপটি রবিন লীগ পদ্ধতিতে খেলে কোয়াটার ফাইনালে উত্তীর্ন হবে।আগামী ২৬ মার্চ ফাইনাল ম্যাচের পর পুরস্কার বিতরনের মধ্যদিয়ে টূর্নামেন্টের শেষ হবে।
উদ্বোধনী দিনে টূর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী অসামরিক দলসমুহকে(প্রতিটি)সিন্দুকছড়ি জোনের পক্ষথেকে উৎসাহমুলক ৫হাজার টাকা অনুদান প্রদান করা হয়।সেমিফাইনালিষ্ট দলসমুহ(প্রতিটি)কে কোটার ফাইনালের পর ৫ হাজার টাকা উৎসহমুলক অনুদান প্রদান করা হবে জোনের পক্ষ থেকে।তাছাড়া ম্যাচ অব দ্যা ম্যাচ এবং ম্যান অব দ্যা সিরিজ এবং বিজয়ী ও রানার আপ দলের জন্য আকর্ষণীয় পুরস্কার ট্রফিসহ খেলোয়াড়দের জন্য জোনের পক্ষ থেকে নানা সুযোগ সুবিধা প্রদান করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow