সর্বশেষ সংবাদ

চলে গেলেন কিংবদন্তী পরিচালক মৃণাল সেন


কলকাতা প্রতিনিধিঃ প্রয়াত হলেন প্রখ্যাত চিত্র পরিচালক মৃণাল সেন।

রবিবার সকালে তাঁর ভবানীপুরের বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৯৫ বছর। ১৯২৩ সালের ১৪ মে বাংলাদেশের ফরিদপুরে জন্মগ্রহন করেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন তিনি।

পেয়েছেন দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার। ভুবন সোম, কোরাস, মৃগয়া ও অকালের সন্ধানে ছবির জন্য সেরা ছবি বিভাগে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন। পদ্মভূষণ সম্মানে সম্মানিত এই বর্ষীয়ান পরিচালকের প্রয়ানে শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা বাংলায়।

প্রখ্যাত অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় বলেন, ৬০ বছরের বেশী পারিবারিক সম্পর্ক ছিল আমাদের। বাংলা চলচ্চিত্রে মহীরুহ ছিলেন তিনি। তিনটি সিনেমায় অভিনয় করা অপর্না সেন বলেন আম কাকা বলেই সম্বোধন করতাম মৃণাল সেনকে। কেননা আমার বাবা-মার অনেক দিনের বন্ধু ছিলেন মৃণাল সেন। মৃত্যুর খবর জানার পর মন ভারাক্রান্ত হয়ে গিয়েছে।

অভিনেতা পরান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন মৃণাল সেনের মৃত্যু চলচ্চিত্র জগতের বড় ক্ষতি।পরিচালক বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত শোক প্রকাশ করেছেন মৃণাল সেনের মৃত্যুতে। এক সময়ের প্রতিবেশীকে মহীরুহ বলেই বর্ননা করেছেন তিনি। কবি সুবোধ সরকার বলেন, যে তিন নক্ষত্র আধুনিক বাংলা চলচ্চিত্রের জনক ছিলেন সেই তিন জনের শেষ জন ছিলেন মৃণাল সেন। প্রচুর স্মৃতি আছে তাঁর সাথে আমার। তিনি শুধু দেশের নয় আন্তর্জাতিক স্তরেও জনপ্রিয় ছিলেন।

টুইটে শোক প্রকাশ করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, মৃণাল সেনের প্রয়াণে অপূরণীয় ক্ষতি হল চলচ্চিত্র জগতের। মুখ্যমন্ত্রী ছাড়া এই প্রখ্যাত পরিচালকের প্রয়ানে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ,

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও সিপিআইএম সর্বভারতীয় সাধারন সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow