সর্বশেষ সংবাদ

৩০ জানুয়ারি যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে একাদশ জাতীয় সংসদ

এশিয়ানবার্তা: আগামী ৩০ জানুয়ারি যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে নব গঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ। ওইদিন বিকেল ৩টায় অধিবেশন শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে কার্যোপদেষ্ঠা কমিটির বৈঠকে আয়ুস্কাল নির্ধারন করা হবে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন টানা তৃতীয় মেয়াদের প্রথম সংসদ অধিবেশন। আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক নেতা ও বর্ষীয়ান রাজনীতিক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের শোক প্রস্তাব ও প্রেসিডেন্ট মো. আব্দুল হামিদের ভাষণের মধ্য সংসদ অধিবেশন দিয়ে শুর হচ্ছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহামান্য প্রেসিডেন্ট মো: আবুদল হামিদ একাদশ জাতীয় সংসদের ১ম (২০১৯ খ্রিস্টাব্দের ১ম) অধিবেশন আহবান করেছেন। তিনি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ৭২ অনুচ্ছেদের (১) দফায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ অধিবেশন আহবান করেছেন। গতকাল বুধবার জাতীয় সংসদ সচিবালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

নির্বাচনে অংশ নিলেও অদ্যাবদি শপথ গ্রহণ না করায় এবারও দেশের অন্যতম বড় রাজনৈতিক দল বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে বাইরে রেখেই যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে একাদশ জাতীয় সংসদ। অবশ্য শপথগ্রহনের সময়সীমা ৯০দিন পার না হওয়া পর্যন্ত এটিকে বিএনপিবিহীন সংসদ বলা যাচ্ছে না। দশম সংসদের মতো এবারও বিরোধী দলের আসনে বসছে জাতীয় পার্টি। তবে বিরোধী দলীয় নেতা পদে পরিবর্তন আসছে।
গত সংসদে দলটির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন বিরোধী দলীয় নেতা পদে থাকলেও এবার জাপার চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ প্রথমবারের মতো বিরোধী দলীয় নেতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হচ্ছেন। সংসদে তারা কার্যকর বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করতে মহাজোটে থাকলেও এবার সরকারের অংশীদার হননি দলটির নির্বাচিতরা। সূত্রমতে, অধিবেশনের প্রথম দিনে সংবিধান অনুযায়ী প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ ভাষণ দেবেন। অধিবেশন শুরুর দিনেই স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকার নির্বাচন করবে সংসদ। এলক্ষ্যে সংসদ সচিবালয়ের প্রস্তুতি চলছে। সংবিধান অনুযায়ী বছরের প্রথম অধিবেশন শুরুর দিন প্রেসিডেন্ট জাতীয় সংসদে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। পরে প্রেসিডেন্টের ওই ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব নিয়ে সাধারণ আলোচনা হয়। আবার চলতি সংসদের কোনো এমপি মারা গেলে অধিবেশন শুরুর পর মুলতবি করা হয়। তাই এবারের অধিবেশন শুরুর পর মুলতবি দিয়ে ওইদিনই আবারও শুরুর সম্ভাবনা রয়েছে। সংসদ সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগের দুইবারের সাধারন সম্পাদক এবং সদ্য বিদায় নেয়া সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মৃত্যুতে শোকপ্রস্তাব উত্থাপন করা হবে প্রথমে। এই প্রস্তারের ওপর মরহুমকে নিয়ে আলোচনার পর সংসদের বৈঠক কিছুক্ষণ মুলতবি দেয়া হবে। এরপর প্রেসিডেন্ট ভাষণ দেবেন।
এদিকে সংবিধানের অনুচ্ছেদ-৭৪ অনুযায়ী নতুন সংসদের প্রথম বৈঠকে স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকার নির্বাচন করার বিধান রয়েছে। এ জন্য কমপক্ষে এক ঘণ্টা পূর্বে নোটিশ দিতে হয়। একজন প্রস্তাবক, একজন সমর্থক ও প্রার্থীর সম্মতি লাগে। একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হিসেবে আওয়ামী লীগ এবার স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকার হিসেবে তাদের প্রার্থী চূড়ান্ত করে সংসদে পাঠাবে। দশম সংসদের স্পিকারের তত্ত্বাবধানে অধিবেশনে নির্বাচন সম্পন্ন হবে। এইদিন বিভিন্ন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি গঠণেরও সম্ভাবনা রয়েছে।
জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের উপসচিব নাজমুল হক ইনকিলাবকে বলেন, স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকার নির্বাচন ছাড়াও প্রথম অধিবেশনে সভাপতিমন্ডলি মনোনয়ন, শোক প্রস্তাব, অধ্যাদেশ উত্থাপন (যদি থাকে), সংসদীয় কমিটি গঠন (যদি থাকে), সংবিধান বা আইন অনুযায়ী কোনো রিপোর্ট উপস্থাপন (যদি থাকে) ও প্রেসিডেন্টের ভাষণ থাকে। তবে রেওয়াজ অনুযায়ী প্রশ্নকাল থাকে না। নতুন সংসদের শীতকালীন এই অধিবেশন কতদিন চলবে তা কার্যোপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে। অধিবেশন শুরুর একঘণ্টা আগে সংসদ ভবনে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। কার্যোপদেষ্টা কমিটির ওই বৈঠকে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করবেন। এতে সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বিরোধী দলীয় নেতা উপস্থিত থাকবেন। তবে প্রেসিডেন্টর ভাষণের ওপর দীর্ঘ আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে বলে এই অধিবেশন দীর্ঘ হওয়ার সম্ভাবনাই বেশী।
গত ৩০ ডিসেম্বর ২৯৯ সংসদীয় আসনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের পর নির্বাচিতরা গত ৩ জানয়ারি সংসদ ভবনের শপথ কক্ষে চার ধাপে শপথ নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow