সর্বশেষ সংবাদ

দলের সিদ্ধান্ত বরখেলাপ করলেই সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে: রহুল কবির রিজভী

এশিয়ানবার্তা: উপজেলা নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পর অনেকেরই জানার আগ্রহ ছিলো স্থানীয় সরকার নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে কিনা। এমনকি দলের নেতাকর্মী বিশেষ করে বিগত ২০১৪ সালের সর্বশেষ উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি জোটের যারা নির্বাচিত চেয়ারম্যান তাদের ব্যাপারে দলীয় সিদ্ধান্ত জানতে চেয়েছিলেন সংশ্লিষ্টরা। উপজেলা নির্বাচনের বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দলীয় অবস্থান জানিয়েছে বিএনপি।

রোববার বিকালে রাজধানীর নয়াপল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রহুল কবির রিজভী বলেন, দলের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে, আগামী উপজেলা নির্বাচনে দলের কোন নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করতে পারবেন না। যদি কেউ দলের সিদ্ধান্ত বরখেলাপ করে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে তাহলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রিজভী বলেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেছেন-উপজেলা নির্বাচনসহ নির্বাচনগুলোতে রাজনৈতিক দলগুলো অংশগ্রহণ না করা হতাশাজনক। যে সিইসি ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের পরে বলেন যে, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ ছিল, উপজেলা নির্বাচনও একইভাবে স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ হবে। তাহলে স্পষ্টত:ই বোঝা যাচ্ছে উপজেলা নির্বাচনের ভবিষ্যৎ।

তিনি বলেন, এই নির্বাচনও যে আগের দিন রাতেই অনুষ্ঠিত হবে তাতে কোন সন্দেহ নেই। সমস্ত নির্বাচনী ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে, ভোটাধিকার কবরস্থ করে সিইসি নিজের বিশ্বাসযোগ্যতা ধ্বংসের পরেও আত্মপীড়নবোধ না করে অবলীলায় ৩০ ডিসেম্বর মহাভোট ডাকাতিরই নির্বাচনের পুনরাবৃত্তির ঘোষণা দিলেন উপজেলা নির্বাচনের।

বিএনপির এই নেতা বলেন, আপনারা সবাই লক্ষ্য করেছেন-ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের পরিবেশ। কোথাও কোন সাড়া-শব্দ নেই, মানুষ নীরব ও উৎসাহহীন। সিইসি গণতন্ত্রের কবর দিয়েছেন ২৯ ডিসেম্বরের রাতেই। তাই আইন-কানুন, নিয়ম-নীতি, লজ্জা শরমের ধার ধারছেন না তিনি। প্রধান নির্বাচন কমিশনার সঠিক হেদায়েত ও শুভবুদ্ধি থেকে বঞ্চিত একজন ব্যক্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow