সর্বশেষ সংবাদ

বাড়ছে বিভিন্ন পণ্যের দাম, নিয়ন্ত্রণে টিসিবি’র বিক্রি শুরু চলতি সপ্তাহেই


মঈন উদ্দীন: পবিত্র রমজান মাসকে সামনে রেখে রাজশাহীতে কয়েকটি পণ্যের দাম বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। এদিকে পণ্যের দর নিয়ন্ত্রণে চলতি সপ্তাহের শেষে কয়েকটি পণ্য নিয়ে রাজশাহীর বাজারে আসবে টিসিবি। শনিবার রাজশাহী মহানগরীসহ এর উপকন্ঠের হাট-বাজারগুলোতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রমজান মাসকে সামনে রেখে কয়েকটি নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধি পেতে শুর্ব করেছে। এরমধ্যে রয়েছে পেয়াঁজ, বেগুন, শশা, চিনি, ছোলা, মাছ ও মুরগি। পণ্যগুলির দাম বৃদ্ধির ফলে সাধারণ ক্রেতারা বাজারে গিয়ে দাম শুনে আৎকে উঠছেন। বিক্রেতারা বলছেন, সরবরাহ কম থাকায় দাম বেড়েছে। সরবরাহ বৃদ্ধি পেলে দাম কমবে। সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে ৫ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে পেয়াঁজ দেশি ২৫ থেকে ৩০, ভারতিয় ২০, বেগুন ১০ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে ৫০, শশা ১০ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে দেশি ৪০, হাইব্রীড ৩০, চিনি ২ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে ৫২, ছোলা ২ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে ৭৫ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।
এদিকে আসন্ন রমজান মাসে পণ্যের দর নিয়ন্ত্রণে সরকার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। টিসিবি’র রাজশাহী আঞ্চলিক কার্যালয়ের অফিস প্রধান প্রতাপ কুমার সোনালী সংবাদকে জানান, এই সপ্তাহের শেষের দিকে পণ্যের দর নিয়ন্ত্রণে রাজশাহীতে ৫টি পণ্য বিক্রি শুর্ব হবে। পণ্যগুলোর মধ্যে থাকবে চিনি, ছোলা, মসুরডাল, সয়াবিন তেল ও খেজুর। তিনি বলেন, এবার পণ্যগুলোর মান ভালো এবং দাম বাজারের চেয়ে কম। ফলে বাজারে টিসিবি পণ্যের চাহিদা থাকবে। বরাবরের মত এবারও নগরীতে ডিলাররা ছাড়াও বিভিন্ন মোড়ে ট্রাকে পণ্য বিক্রি করা হবে।

রাসিকের উচ্ছেদ অভিযানে
পরিচ্ছন্ন হচ্ছে নগর
মঈন উদ্দীন: অবৈধ দখলদার উচ্ছেদে অভিযান শুরু করেছে রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক)। প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ১১দিন ব্যাপী এ উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয় গত ১৫ এপ্রিল। গত ছয়দিনের এই উচ্ছেদ অভিযানে পরিচ্ছন্ন হচ্ছে নগর। ফলে এ অভিযানকে স্বাধুবাদ জানিয়েছে নগরবাসী। তবে অভিযান শুরুর পর দখলদারসহ একটি মহল এরই মধ্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। একটি চক্র আড়ালে ঐক্যবদ্ধ হয়ে অভিযান বন্ধের ষড়যন্ত্রও চালাচ্ছেন।
নগরবাসীর দাবি, কোন ষড়যন্ত্রে যেন অভিযান বন্ধ না হয়। কারণ কিছু অবৈধ দখলদারের জন্য নগরের কয়েক লাখ মানুষের অসুবিধা হবে সেটি হতে দেয়া ঠিক হবে না। এ ছাড়াও যে সকল এলাকায় অভিযান শেষ হচ্ছে সেখানে দখলদারেরা আবারো নতুন করে দখলের পায়তারা করছে। উচ্ছেদ অভিযান শেষে নিয়মিত তদারকি করতে হবে যাতে আবারো তারা দখল করতে না পারে।
রাসিক সূত্র জানান, রাসিকের বিশেষ সভায় এই উচ্ছেদ অভিযানের অনুমোতির পাশাপাশি ফুটপাত ব্যবসায়ীদের ব্যবসার ক্ষেত্রে নতুন নিয়ম করে দিয়ে গত ৯ এপ্রিল সিদ্ধান্ত হয়। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সকাল থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত ফুটপাত বা রাস্তা দখল করে কোন দোকান বসান যাবে না। ফুটপাত ও রাস্তা সংলগ্ন ব্যবসায়ীরা বিকেল চারটা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত ব্যবসা করতে পারবে। তবে কোন ব্যবসায়ী ফুটপাত বা রাস্তায় স্থায়ীভাবে ব্যবসার মালামাল বা সরঞ্জাম বা দোকান রাখতে পারবে না। এরপর রাত ১০টার পর দোকানসহ মালামাল সরিয়ে নিতে হবে। এদিকে, ছয়দিনের উচ্ছেদ অভিযানে সড়ক ও ফুটপাতে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে বাড়ির মালিকেরা নির্মাণ সামগ্রী ও ব্যবসায়ীরা মালামাল রাখায় নিয়ম মাফিক তাদের কাছ থেকে ৭ লাখ ১৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছে রাসিক।

রাজশাহীতে কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা,
স্বামীকে পুলিশে দিলো স্ত্রী
মঈন উদ্দীন: রাজশাহীতে কিশোরীকে (১৬) ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে মাহফুজুর রহমান নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। শুক্রবার রাতে ওই ধর্ষকের স্ত্রীর সহযোগিতা তাকে আটক করা হয়। নগরের রাজপাড়া থানার লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া এলাকায় আটক মাহফুজুর পেশায় একজন রিকশাচালক।
রাজপাড়া থানার ওসি হাফিজুর রহমান জানান, ভাটাপাড়া এলাকার বাসিন্দা রিকশাচালক মাহফুজুর তার নিজ বাড়িতে একা পেয়ে এক কিশোরীকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে। এ সময় তার স্ত্রী বাড়িতে এসে বিষয়টি দেখে স্থানীয় লোকজনকে জানায়। বিষয়টি টের পেয়ে সে বাড়ি থেকে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় স্ত্রীর সহযোগিতায় স্থানীয় লোকজন তাকে আটক করে পিটুনি দিয়ে পুলিশ ডাকে। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাবাসাদ করে। একই সঙ্গে ওই কিশোরীকে থানায় ডেকে নারী পুলিশ দিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। দুইদিন ওই কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা করেছিল বলে স্বীকার করেছে।
নগরের ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নূরুজ্জামান টুকু জানান, মেয়েটি দির্ঘদিন ধরে তার বাড়িতে থাকতো। এর আগেও সে মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। কিন্তু লজ্জায় সে বিষয়টি প্রকাশ করেনি। শুক্রবার সন্ধ্যার পর স্ত্রীর অনুপস্থিতিতে মেয়েকে ফের ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় বাড়ি গিয়ে ঘটনাটি দেখে তার স্ত্রী স্থানীয় লোকজনকে খবর দেয়।

রাজশাহীর বাগমারায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের
ভিত্তি স্থাপন করলেন এমপি এনামুল
মঈন উদ্দীন: রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার সকাল ১০টায় উপজেলার তক্তপাড়ায় কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধণ করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাগমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকিউল ইসলাম, বাগমারা উপজেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান অনিল কুমার সরকার, বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আতাউর রহমান, এলজিইডি প্রকৌশলী সানোয়ার হোসেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ আক্তার বেবী। অন্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলী খাজা এমএ মজিদ, রফিকুল ইসলাম, সাহার আলী, ইয়াচিন আলী, মকবুল হোসেন, সোলাইমান আলী হিরু, সুনীল কুমার, চেয়ারম্যান আসলাম আলী আসকান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মতিউর রহমান টুকু। ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজ উদ্দিন সরুজ আলী প্রমূখ। কাজটির ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নাটোর বনপাড়ার মীম ডেভেলপমেন্ট ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড। কমপ্লেক্স ভবনটি নির্মাণে ব্যয় হবে ২ কোটি ৫৭ লাখ ৭৮ হাজার টাকা। কাজটি বাস্তাবায়ন করছেন এলজিইডি রাজশাহী।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow